কুড়িগ্রাম শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:২৬ পিএম

শিরোনাম
  ছয়মাস থেকে পলিথিনের নীচে বসবাস ছালমা বেগমের       উলিপুরে PSDO এর বিনামূল্যে ব্লাড গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন       কৃত্রিম জলাবদ্ধতায় অনিশ্চিত আমন আবাদ, খাল খননের দাবী       আমন চারার সংকটে কুড়িগ্রামের কৃষকেরা       বন্যার্তদের পাশে রাশিদা আওয়াল ফাউন্ডেশন       ভূরুঙ্গামারীতে রাস্তা থেকে কেটে নেয়া গাছ উদ্ধার       ভুরুঙ্গামারী হাসপাতালে সেনাবাহিনীর করোনা উপকরণ সামগ্রী হস্তান্তর       চিলমারীকে দীর্ঘমেয়াদী বন্যার কবল থেকে রক্ষার্থে মানববন্ধন       ভূরুঙ্গামারীতে “নো মাস্ক নো ট্রাভেল” ক্যাম্পেইন       সেচ্ছাসেবী সংগঠনের সাথে যৌথভাবে কাজ করবে “ভূরুঙ্গামারী উন্নয়ন সংস্থা”    
 

বন্যার্তদের পাশে রাশিদা আওয়াল ফাউন্ডেশন

প্রকাশিত সময়: আগস্ট, ৪, ২০২০, ০৮:০৭ অপরাহ্ণ  

 
 

কল্লোল রায়:

কুড়িগ্রামের সাম্প্রতিক পরপর দুই দফা বন্যায় প্রতিবছরের মত ক্ষতিগ্রস্ত চরাঞ্চলের বাসীন্দারা। তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে রাশিদা আওয়াল ফাউন্ডেশন। সোমবার কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার বেগমগঞ্জ ইউনিয়নের বানভাসিদের মাঝে ঈদ উপহার দেন প্রতিষ্ঠানটির ম্যানেজিং ডিরেক্টর মো. রাশেদুর রহমান। এ সময় তারা তিন চরের প্রায় ৩০০ পরিবারের মাঝে এই উপহার দেন। এসময় তার বন্ধু মো.আবদুল হাসিব উপস্থিত ছিলেন। ঢাকা থেকে দুই ঘন্টার প্লেন ভ্রমণ তারপর তিনঘন্টার যানভ্রমণের পর এক ঘন্টার নৌপথ পাড়ি দিয়ে বানভাসীদের ঈদ উপহার দিলো ফাউন্ডেশনটি।

হোসনে আরা বেগম (৪০) চর বালাডোবার বাসিন্দা তিনি। উপহার পেয়ে তিনি বলেন, “ঈদের দিন ভালমন্দ খাইছি তারপর থাকি আছি একবেলা খায় দিনে। ত্রাণ পেয়ে খুশি মনে তিনি আরও বলেন, ঢাকাত থাকি যামরা আসছে আল্লাহ তামার ভাল করুক, আরও টেকা পয়সার মালিক করক”। করোনা ও বন্যার প্রভাবে পরিবারের তিন সদস্য নিয়ে বিপাকেই ছিলেন মোতালেব মোল্লা রাতে খিচুড়ি খাবেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, ” আইজ রাইতয়ত খিচড়ি খামো, এটে চাল, ডাইল আছে তাহে দিয়া রানমো” তিনি আরও বলেন, মেলা দিন ধরি কাজ কাম নাই খুব অভাবে আছি স্যারেরা আইসে কিছু দেয় তাহে দিয়া চলি খাই’।

ঈদ উপহার বিতরণ শেষে প্রতিষ্ঠানটির ম্যানেজিং ডিরেক্টর মো.রাশেদুর রহমান বলেন, এই প্রতিষ্ঠানটি আমার বাবা মায়ের নামে করা আমি চেষ্টা করি সব সময় অসহায় মানুষের পাশে দাড়াতে আর সেই চেষ্টা থেকে এই ক্ষুদ্র উপহার। আমি এর আগেও শীতকালে এখানে এসেছিলাম এবং সুযোগ হলে বারবার আসবো, আমি আপনাদের পাশে বন্ধুরমত দাড়াতে চাই। তিনি আরও বলেন, আমার বাবা-মা জীবীত আছেন আপনারা আমার জন্য আমার পরিবারের জন্য দোয়া করবেন।

সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে জেলার পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খান বলেন, আমার বন্ধু তার প্রতিষ্ঠান থেকে আপনাদের পাশে দাড়িয়েছে আমি শুধু তাকে সহযোগিতা করেছি। এসময় তিনি চরবাসীকে করোনাভাইরাসের সংক্রামণ রোধে স্বাস্থ্যবিধি ও মাস্ক পরিধান করার আহ্বান জানান।


ট্যাগঃ

   
 
আরও পড়ুন
 
 
Top