কুড়িগ্রাম বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭:৫৮ এএম

শিরোনাম
  ছয়মাস থেকে পলিথিনের নীচে বসবাস ছালমা বেগমের       উলিপুরে PSDO এর বিনামূল্যে ব্লাড গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন       কৃত্রিম জলাবদ্ধতায় অনিশ্চিত আমন আবাদ, খাল খননের দাবী       আমন চারার সংকটে কুড়িগ্রামের কৃষকেরা       বন্যার্তদের পাশে রাশিদা আওয়াল ফাউন্ডেশন       ভূরুঙ্গামারীতে রাস্তা থেকে কেটে নেয়া গাছ উদ্ধার       ভুরুঙ্গামারী হাসপাতালে সেনাবাহিনীর করোনা উপকরণ সামগ্রী হস্তান্তর       চিলমারীকে দীর্ঘমেয়াদী বন্যার কবল থেকে রক্ষার্থে মানববন্ধন       ভূরুঙ্গামারীতে “নো মাস্ক নো ট্রাভেল” ক্যাম্পেইন       সেচ্ছাসেবী সংগঠনের সাথে যৌথভাবে কাজ করবে “ভূরুঙ্গামারী উন্নয়ন সংস্থা”    
 

দলীয় কাজে সম্পৃক্ত না করায় সাবেক এমপির ক্ষোভ প্রকাশ

প্রকাশিত সময়: ফেব্রুয়ারি, ২৩, ২০২০, ১২:৪১ অপরাহ্ণ  

 
 

উলিপুর প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের উলিপুরে সরকারি বিভিন্ন কর্মসূচীতে স্বাধীনতা বিরোধীসহ বির্তর্কিত ব্যক্তিদের আমন্ত্রন জানানো হলেও মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের প্রবীন ও ত্যাগী নেতা-কর্মীদের আমন্ত্রন না জানানোর অভিযোগ উঠেছে উপজেলা প্রশাসনের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে সংবাদ সম্মেলন করে প্রতিবাদ জানিয়েছেন সাবেক এমপি আমজাদ হোসেন তালুকদারসহ আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা।

সাবেক এই এমপি অভিযোগ করে বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর থেকে স্থানীয় প্রভাবশালী মহলের যোগসাজশে আমিসহ স্বাধীনতা সংগ্রামের অনেক নেতা, সাবেক মহিলা এমপি শাহানাজ সরদার, মুক্তিযোদ্ধা ও আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল কুদ্দুছ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতিসহ স্থানীয় ত্যাগী নেতা-কর্মীদের সরকারি কোন কর্মসূচীতে আমন্ত্রন জানানো হয় না। এমনকি বিজয় দিবস, স্বাধীনতা দিবস, শহীদ দিবসেও আমন্ত্রন জানানো হয়নি। অথচ বিএনপি-জামাতের লোকদের আমন্ত্রন জানানো হয়। কয়েকদিন পূর্বে উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত এক সভায় আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সোলায়মান সরদার বাদশা সাবেক এমপিসহ অন্যান্যদের আমন্ত্রন না জানানোর ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আব্দুল কাদেরের কাছে প্রতিবাদ করলে তিনি (ইউএনও) বলেন, উপরের নির্দেশে আপনাদেরকে আমন্ত্রন জানানো হয় না। উপরের নির্দেশের বিষয়ে জানতে চাইলে সংবাদ সম্মেলনে সোলায়মান সরদার বাদশা বলেন, ওই সময় ইউএনও স্থানীয় এমপির কথা বলেন।
সম্মেলনে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ও মুজিবনগর সরকারে পলিটিক্যাল সুপারভাইজার ও সাবেক এমপি আমজাদ হোসেন তালুকদার বলেন, স্বাধীনতা যুদ্ধে যারা এই অঞ্চলের নেতৃত্ব দিয়েছে, যাদের নেতৃত্বে মাতৃভাষা রাষ্ট্রভাষা হিসাবে স্বীকৃতি পেয়েছে তাদেরকে এ সমস্ত অনুষ্ঠানে ডাকা না হলে নতুন প্রজন্ম প্রকৃত ইতিহাস জানতে পারবে না ফলে স্বাধীনতা বিরোধীরা বিকৃত ইতিহাস প্রচার করবে। ১৯৬৭ সালে উলিপুরে প্রথম শহীদ মিনার স্থাপনের নেতৃত্ব দেই আমরা, মুক্তিযুদ্ধের সময় তা ভেঙ্গে দেয়া হয়। অথচ এখন রাজাকারের পরিবারের লোকেরা শহীদ মিনার নির্মানের দাবী করে আসছেন। তিনি আরও অভিযোগ করেন, বিতর্কিত মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক কমান্ডার গোলাম হোসেন মোস্তফা যিনি আওয়ামীলীগ ও সরকারের সমালোচনা করেন, এহেন একজন বিতর্কিত ব্যাক্তিকে সঙ্গে নিয়ে সুবিধাবাদী বর্তমান আওয়ামীলীগের কিছু নেতা কয়েকদিন পূর্বে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাথে স্বাক্ষাৎ করেন যা একটি বিস্ময়কর ব্যাপার। আর এভাবেই অপশক্তিরা আওয়ামীলীগে ঢুকে পড়ছে। একই সঙ্গে তিনি ত্যাগী-নেতা কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে নতুন করে ইউনিয়ন কমিটি গঠন ও স্থগিতকৃত উপজেলা আওয়ামীলীগের কাউন্সিল দ্রুত সম্পন্ন করার জন্য কেন্দ্রের প্রতি অনুরোধ জানান।
শুক্রবার (২১ ফেব্রুয়ারী) রাতে কুড়িগ্রাম-৩ আসনের আওয়ামীলীগের সাবেক এমপির বাস ভবনে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মতি শিউলী, সিনিয়র সহ-সভাপতি সোলায়মান সরদার বাদশা, উপদেষ্টা মন্ডলির সদস্য বাবর আলী, যুবলীগ নেতা মিঠু দেবসহ সংগঠনের অন্যান্য নেতা-কর্মীরা।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আব্দুল কাদের বলেন, সরকারি সকল কর্মসূচীতে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি, সম্পাদককে আমন্ত্রন করা হয়। এছাড়াও বিভিন্ন পেশাজীবি সংগঠনকে আমন্ত্রন জানানো হয়। সাবেক এমপি’র সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ গুলো রাজনৈতিক বিষয়, এ ব্যাপারে কোন মন্তব্য করা ঠিক হবে না।


ট্যাগঃ

   
 
আরও পড়ুন
 
 
Top