কুড়িগ্রাম মঙ্গলবার, ১৫ Jun ২০২১, ০৪:০৬ পিএম

শিরোনাম
  Motivate Bhurungamari’র কার্যনির্বাহী কমিটি ঘোষণা       ফুলবাড়ীতে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ       নিম্নমানের কাজ করায় স্কুল ভবনের ড্রপ ওয়াল ভেঙ্গে দিলেন প্রশাসন       বিএসএফ’র গুলিতে আহত ভারতীয় কিশোর কুড়িগ্রামে চিকিৎসাধীন       কুড়িগ্রামে লকডাউনে বিপাকে শ্রমজীবী       কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে শিশু ধর্ষণের চেষ্টা, থানায় মামলা       কুড়িগ্রামে চোরাকারবারীর হাতে ভারতীয় বিএসএফ আহত, সীমান্তে পতাকা বৈঠক       চিলমারী আ’লীগ কার্যালয় ভাঙচুরের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন       কুড়িগ্রামে স্বাস্থ্যবিধি মানতে মাঠে জেলা প্রশাসন       চিলমারীতে বিনামূল্যে পিপিআর রোগের টিকাদান ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন    
 

আগলে রেখেছেন যিনি

প্রকাশিত সময়: মে, ১০, ২০২০, ০১:০৮ অপরাহ্ণ  

 
 

আসমাউল হুসনা নিশা:
মাকে নিয়ে যা বলবো কম হয়ে যাবে। বাবা পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করেছেন প্রায় ৪বছর। বাবা কর্মসূত্রে সবসময় বাড়ির বাইরে থাকতেন। খুব বেশি সময় পাওয়া হয়নি বাবা’কে। আমরা মা’র সাথে থাকতাম, মা’কেই সামলাতে হতো ঘর-বাহিরে, আমাদের স্কুল প্রাইভেট সবদিক দেখতে হতো তাকে। অসুস্থতা কিংবা ক্লান্তি কিছুই তাকে ছুঁতে পারতো না। মা’কে কখনও অসুস্থতার অজুহাতে কোনো কাজ এড়াতে দেখিনি, সে গাদাগাদা রান্না করতেও কখনও ক্লান্ত হতো না। সাধ করে একা ২টা দিন কোথায়ও গিয়ে যে ঘুরে আসবে, সেটাও তার কপালে জুটে না কখনও। তার কোনো একার ইচ্ছে নেই, নেই কোনো শখ। ভোর ৬টা থেকে শুরু করে রাত ১২-০১টা পর্যন্ত চলতেই থাকে মেশিনের মত। তার পরেও কত অভিযোগ, অভিমান মা এটা করনি কেন? ওটা হয়নি কেন? কিন্তু মা’র কি কোনো অভিযোগ নেই? হয়তো আছে তবে বলতে পারে না, নয়তো বলে আমাদের কষ্ট দিতে চায় না। মা’র তুলনা শুধুই মা, যিনি আমাদের পুরো পরিবারটাকে আগলে রেখেছেন। আমার কাছে আমার মা “Super Mom”। মা’র আদরযত্নে বড় হচ্ছি কিন্তু কখনও বলা হয়নি, মা তোমায় কতটা ভালোবাসি।


ট্যাগঃ

   
 
আরও পড়ুন
 
 
Top